1. syedmonir1985@gmail.com : DAINIKPOTRIKA :
  2. dainikpotrikainfo@gmail.com : Central Newsroom : Central Newsroom
  3. dainikpotrikabd@gmail.com : Central newsroom : Central newsroom
  4. dainikpotrikaads@gmail.com : News Room USA : News Room USA
প্রযুক্তিতে নারীদের স্বাবলম্বী করছেন প্রচারবিমুখ উদ্যােক্তা ঊর্মী - দৈনিক পত্রিকা
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০৮:২৪ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ
ছন্দের তালে নৃত্যে আনন্দে ভারত-বাংলাদেশের অংশগ্রহনে নৃত্য ছড়াওকবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগীতা-২০২১

প্রযুক্তিতে নারীদের স্বাবলম্বী করছেন প্রচারবিমুখ উদ্যােক্তা ঊর্মী

কে, এইচ, এম, নূরুল আলম কামাল,নেত্রকোনা প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশ কালঃ সোমবার, ৩১ মে, ২০২১
  • ৯৪ বার দেখা হয়েছে
একবিংশ শতাব্দীতে এসে নারীরা এখন সর্ব ক্ষেত্রেই অবদান রাখছে।নারী এখন আধুনিক ও প্রযুক্তিগত ।নারী অন্যকে যেমন প্রেরণা দেন,ঠিক তেমনি নিজ শক্তির বলে আজ বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখলেও শুধু গ্রাফিক ডিজাইনার হিসেবে তেমন সফলতা ছিল না। তাই এ সেক্টরে নারী অংশগ্রহণ বাড়াতে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ময়মনসিংহের মেয়ে ঊর্মি সরকার।
তিনি  ইউনিভার্সিটি পড়ুয়া নারী শিক্ষার্থীদের গ্রাফিক্স ডিজাইন (কোর্স) শিখিয়ে স্বাবলম্বী করে এ সেক্টরে উন্নয়নের ছোঁয়া রাখছেন। বিশেষ করে নারী উদ্যোক্তাদের ক্ষেত্রে সামাজিক রক্তচক্ষু এখন আর বড় বাধা বলে মনে করেন না এই নারী উদ্যোক্তা।
বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় এআইইউবি থেকে লেখাপড়া শেষ করে মেয়েদেরকে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখিয়ে স্বাবলম্বী করে তুলতে ‘টেকনো এম্প্রেস’ নামক প্রতিষ্ঠান অনলাইনের মাধ্যমে শুধুমাত্র নারীদের প্রযুক্তিগত জ্ঞান দিয়ে কিভাবে স্বাবলম্বী করা যায়। বর্তমানে ৩০ জন নারী গ্রাফিক ডিজাইনারের প্রশিক্ষণরত রয়েছেন ঊর্মির তত্বাবধানে।
ঊর্মি জানান, সামনে আরো বড় আকারে গ্রুপের পরিধি বাড়ানোর কথা ভাবছেন। তাছাড়া, টেকনিক্যাল লাইনে আরো নারীদেরকে সম্পৃক্ত করে স্কিল ডেভেলপমেন্ট করা যায় কিনা সে ব্যাপারেও কাজ করবেন। এরই মধ্যে মুখোমুখি হতে হচ্ছে নানা সমস্যার। কিন্তু এসব সমস্যার সমাধান করে নিজ লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়াই একজন উদ্যোক্তার কাজ এবং তিনি এই মনোভাব নিয়েই এগিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন ।
তিনি আরো জানান, একটা সময় ছিল যখন একজন নারীকে উদ্যোক্তা হিসেবে কাজ করা শুরু করলে প্রথমেই লড়াই করতে হয় সমাজের দৃষ্টিভঙ্গির সাথে বললেন ওই নারী । কিন্তু সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে এই সমস্যা অনেকটাই কম কিন্তু একেবারে শেষ হয়ে যায়নি বলে তিনি মনে করেন । বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিজয়ের স্বাক্ষর রাখলেও এ সেক্টরে কাজ নারীরা তেমন এগিয়ে আসেননি।তাদের উদ্ধুদ্ধ  এ সেক্টরে নারীদের অবদানের কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন যে, টেকনিক্যাল লাইনে নারীদের কাজ করতে দেখা গেলেও বিশ্বের অন্যান্য দেশের থেকে এ সেক্টরে কিছুটা পিছিয়ে আমাদের দেশ। কিন্তু তিনি মনে করেন যে, আমরা চাইলে অন্যান্য সেক্টরের মত টেকনিক্যাল লাইনেও নারীরা বড় ভূমিকা রাখতে পারবে নারীরা। সেই উদ্যোগ নিয়ে তিনি এগিয়ে যেতে চাচ্ছেন। তিনি আরও বলেন যে, নিজের প্রচেষ্টার পাশাপাশি পারিবারিক সহযোগিতাও প্রয়োজন সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য এবং তিনি তার পরিবার থেকে পূর্ণ সহযোগিতা পেয়েছেন বলেও জানিয়েছেন ।
পুরুষদের পাশাপাশি ফ্রি ল্যান্সার হিসেবে নিজে গ্রাফিক ডিজাইনার হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন ভার্সিটিতে অধ্যায়নরত অবস্থায় একজন উদ্যোক্তা হিসেবে কাজ করার অনুপ্রেরণা আসে । সেই অনুপ্রেরণা থেকেই তিনি কাজ করে যাচ্ছেন এবং এই করোনাকালীন সময়ে মেয়েদের গ্রাফিক ডিজাইনারের কোর্স শিখিয়ে তাদের স্বাবলম্বী করে তোলার জন্য তিনি কাজ করছেন এবং ভবিষ্যতে শুধু গ্রাফিক ডিজাইনিং নয় আরও অনেক কিছু নিয়ে কাজ করার কথা জানান।
ঊর্মি জানান, প্রতি মাসে নারীদের জন্য বিনামূল্যে কিছু প্রশিক্ষণ থাকে কম্পিউটার এর বেসিক স্কিল উন্নতি করতে পারে । সেখানে ২০০ জন শিক্ষার্থী জয়েন করতে পারে।নারীরা যেভাবে এগিয়ে আসছে এ সেক্টরে তাতে দেশের অর্থনীতিতে বড় ভূমিকা রাখবেন। নারী এ পেশায়  সম্পৃক্ত ও প্রতিষ্টিত করতে সবার সহযোগিতা চান এ উদ্যােক্তা।

গুরুত্বপূর্ণ সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© সর্বস্বত্ত্ব ২০১৯-২০২১
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardainikp1
ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । দৈনিক পত্রিকা কতৃপক্ষ
%d bloggers like this: