1. syedmonir1985@gmail.com : DAINIKPOTRIKA :
  2. dainikpotrikainfo@gmail.com : Central Newsroom : Central Newsroom
  3. dainikpotrikabd@gmail.com : Central newsroom : Central newsroom
  4. dainikpotrikaads@gmail.com : News Room USA : News Room USA
লালমনিরহাটে জন্ম নিবন্ধন সনদে অতিরিক্ত টাকা আদায়,ইউপি সচিব অবরুদ্ধ - দৈনিক পত্রিকা
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০৭:২৬ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ
ছন্দের তালে নৃত্যে আনন্দে ভারত-বাংলাদেশের অংশগ্রহনে নৃত্য ছড়াওকবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগীতা-২০২১

লালমনিরহাটে জন্ম নিবন্ধন সনদে অতিরিক্ত টাকা আদায়,ইউপি সচিব অবরুদ্ধ

লুৎফর রহমান, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি.
  • প্রকাশ কালঃ বুধবার, ৯ জুন, ২০২১
  • ৫৭ বার দেখা হয়েছে

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় জন্ম নিবন্ধন কার্ডের জন্য সরকারী ফিয়ের চেয়ে অতিরিক্ত টাকা আদায় ও জন্ম নিবন্ধন কার্ডের জন্য দীঘ্যদিন ধরে ভোগান্তির ফলে ইউপি সচিব ওবায়দুল ইসলামকে অবরুদ্ধ করে রাখেন এলাকাবাসী। পরে ইউপি চেয়ারম্যান অতিয়ার রহমান আতি সচিবের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে বিক্ষুব্ধরা চলে যায়।
বুধবার ৯ জুন, দুপুরে হাতীবান্ধা উপজেলার ৪নং টংভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদে এ ঘটনাটি ঘটেছে। জানাগেছে, টংভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সচিব ওবায়দুল ইসলাম দীর্ঘ দিন ধরে সরকারি ফি উপেক্ষা করে মানুষের নিকট থেকে অতিরিক্ত টাকা উৎকোচ গ্রহণ করে আসছিলো এবং দীঘ্যদিন ধরে জনগণকে ভোগান্তির ফলে এমনতাবস্থায় বুধবার ভুক্তভোগীরা ক্ষুব্ধ হয়ে ঐ সচিবকে অবরুদ্ধ করে রাখেন। পরে খবর পেয়ে টংভাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান অতিয়ার রহমান আতি সচিবের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে বিক্ষুব্ধরা চলে যায়।ভুক্তভোগী মতিয়ার রহমান বলেন, ইউপি সচিব ওবায়দুল ইসলামের নিকট জন্ম নিবন্ধন করার জন্য গেলে সরকারি ফি এর চেয়ে অতিরিক্ত টাকা উৎকোচ দাবি করেন। তাই তার শাস্তির দাবিতে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়।একই কথা বলে ভুক্তভোগী রুবি বেগম জানান, এই ইউপি সচিব ঘুষ ছাড়া কোন কাজ করেনা। আমরা এর শাস্তি চাই।আমার সন্তানের জম্মনিবন্ধনের জন্য তাকে ২শত টাকা দিয়েছি ।আজ ২৫দিন থেকে আমাকে ঘুরাইতেছে। কিন্তু তিনি আমাকে কার্ড দিচ্ছেনা।এ বিষয়ে টংভাঙ্গা ইউপি সচিব ওবায়দুল ইসলামের মুঠোফোনে একাধিক বার ফোন করা হলেও তিনি ফোনটি রিসিভ করে নি। এ বিষয়ে টংভাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান আতিয়ার রহমান আতি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অতিরিক্ত ফি দাবি করায় এলাকাবাসী সচিবকে অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে খবর পেয়ে সচিবকে উদ্ধার করা হয়।এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) সামিউল আমিন বলেন, বিষয়টি শুনেছি। তবে সচিবের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করার পর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

গুরুত্বপূর্ণ সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© সর্বস্বত্ত্ব ২০১৯-২০২১
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardainikp1
ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । দৈনিক পত্রিকা কতৃপক্ষ
%d bloggers like this: