1. syedmonir1985@gmail.com : DAINIKPOTRIKA :
  2. dainikpotrikainfo@gmail.com : Central Newsroom : Central Newsroom
  3. dainikpotrikabd@gmail.com : Central newsroom : Central newsroom
  4. dainikpotrikaads@gmail.com : News Room USA : News Room USA
হাতীবান্ধায় ভুট্টা ক্ষেত নষ্ট করে জমি দখল - দৈনিক পত্রিকা
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ
ছন্দের তালে নৃত্যে আনন্দে ভারত-বাংলাদেশের অংশগ্রহনে নৃত্য ছড়াওকবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগীতা-২০২১

হাতীবান্ধায় ভুট্টা ক্ষেত নষ্ট করে জমি দখল

লুৎফর রহসান লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশ কালঃ রবিবার, ২ মে, ২০২১
  • ৪৯ বার দেখা হয়েছে
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান ইউনিয়নের আরাজি শেখ সুন্দর এলাকায় ২২ বছর আগে বেদখল হওয়া জমি দখল নিতে ৮ একর জমির ১ হাজার মণ ভুট্টা নষ্ট করার অভিযোগে উঠেছে। শনিবার মধ্য রাতে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় ওই জমি ও ভুট্টার মালিকানা দাবি করে আবুল কালাম আজাদ তালুকদার নামে এক ব্যক্তি পার্শ্ববর্তী ঠাংঝাড়া এলাকার হাবিবুল্লা ও আ. মান্নানসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
তবে হাবিবুল্লা ও আ. মান্নানের দাবি ২২ বছর আগে বেদখল হওয়া তাদের জমি ৩টি রেকর্ড ও হাইকোর্টের রায় বলে তারা উদ্ধার করেছেন।
স্থানীয়রা জানান, সানিয়াজান ইউনিয়নের আরাজি শেখ সুন্দর মৌজায় পার্শ্ববর্তী ঠাংঝাড়া এলাকার হাবিবুল্লা ও আ. মান্নানের ভোগ দখলে থাকার ৮ একর জমি প্রায় ২২ বছর আগে আদালতের রায় মূলে দখল করেন রফিকুল ইসলাম তালুকদারের পুত্র আবুল কালাম আজাদ তালুকদার। পরে ওই জমি নিয়ে উচ্চ আদালতে একাধিক মামলা হয়। দীর্ঘ ২২ বছর ধরে ওই জমিগুলো চাষাবাদ করে আসছেন আবুল কালাম আজাদ তালুকদার।
সম্প্রতি হাইকোর্টের একটি রায় হাবিবুল্লা ও আ. মান্নানের পক্ষে গেলে আবুল কালাম আজাদ তালুকদার ওই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করেন।
আবুল কালাম আজাদ তালুকদার জানান, তাদের পৈত্রিক সূত্র পাওয়া জমি হাবিবুল্লা ও আ. মান্নান গংরা নিজের বলে দাবি করে আসছেন। এ নিয়ে সুপ্রিমকোর্টে একটি আপিলের আবেদন শুনানিধীন রয়েছে। এমতাবস্থায় গত শনিবার মধ্য রাতে হাবিবুল্লা ও আ. মান্নানসহ দুই শতাধিক লোকজন বিভিন্ন দেশিয় অস্ত্রসহ তাদের দখলে থাকা ওই ৮ একর জমি নিজ দখলে নেয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় জমিতে উঠতি ভুট্টা নষ্ট করে দেয়। এতে ১ হাজার মণ ভুট্টা নষ্টসহ ওই জমিতে থাকা এক বসত বাড়ি ভাঙচুর করেন। একজনকে মারধরও করেন।
তবে আবুল কালাম আজাদ তালুকদারের অভিযোগ অস্বীকার করে হাবিবুল্লা বলেন, ৪০, ৬২, ৯২ সালে তিনটি রেকর্ড আমাদের নামে পাশাপাশি হাইকোর্টের রায় আমাদের পক্ষে রয়েছে। সব কিছু মিলে ২২ বছর আগে বে-দখল হওয়া জমি উদ্ধার করেছি। আমরা কোনো বসত বাড়ি ভাঙচুর করি নাই।
হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম বলেন, দুই পক্ষে ওই জমির মালিকানা দাবি করে আসছেন। এ নিয়ে একাধিক মামলাও হয়েছে। সর্বশেষ হাবিবুল্লা ও আ. মান্নানসহ তাদের লোকজন আবুল কালাম আজাদ তালুকদারের আবাদি ভুট্টা নষ্টসহ বসত বাড়ি ভাঙচুর করেছেন। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। আমরা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

গুরুত্বপূর্ণ সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© সর্বস্বত্ত্ব ২০১৯-২০২১
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazardainikp1
ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । দৈনিক পত্রিকা কতৃপক্ষ
%d bloggers like this: